উত্তরায় কারা ছিঁড়ছে ১৫ আগস্টের পোস্টার?

প্রকাশ : ১২ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৪৫

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানী উত্তরায় কোরবানির গরুর হাটের শেয়ার নিয়ে বিবাদে জড়িয়ে শোক দিবসের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে আজ বেশ কয়েকটি জাতীয় দৈনিকে সংবাদও প্রচার হয়। পত্রিকার নিউজ নিয়ে ইতিমধ্যে বেশ আলোচনা-সমালোচনা করতে দেখা গেছে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মাঝে।

অনেকে বলছেন,গরুর হাটের ব্যাপারগুলো অনেকটাই ব্যক্তিগত স্বার্থ জড়িত, তাই বলে জাতির পিতার প্রতি শোক জানিয়ে টানানো পোস্টার কেন আক্রান্ত হবে? তাহলে রাজনীতি করছেন তারা? যাদের হাতে ১৫ই আগস্টের পোস্টার নিরাপদ না। এ নিয়ে দলটির নেতা কর্মীদের মাঝে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে।

সংবাদ সূত্রে জানা যায়, উত্তরার একমাত্র গরুর হাট নিয়ে তুরাগ থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হাশিম চেয়ারম্যানের দুই ছেলে মহিবুল ও জাহিদুল ইজারাদের লোক তুরাগ আওয়ামী লীগের অর্থ সম্পাদক নুর হোসেনের কাছে হাটের শেয়ার দাবি করলে অপারগতা প্রকাশ করে হাট কতৃপক্ষ।

এতে তাদের সাথে থাকা লোকজন নুর হোসেনসহ আট দশ জনকে মারধর করে। মারধর করে হাটের ১ নং গদি বা হাশিল ঘর থেকে ফিরে আসার সময় তারা ১৫ই আগস্টের শোক জানিয়ে টানানো বেশ কিছু ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলে। আবার কিছু ফেস্টুন নামিয়ে ভাংচুরও করে।

সংবাদে প্রকাশ,  হাশিম চেয়ারম্যানের ছেলে জাহিদুল এসব ঘটনা অস্বীকার করেন এবং সব অপকর্মের জন্য নুর হোসেনকে দায়ী করেন। এদিকে নুর হোসেন তাকে মারধর করা এবং ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলার জন্য জাহিদুলকে দায়ী করেছেন।

পিডিএসও/তাজ