প্রতিবন্ধীর প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাসী হামলা, দেড়লক্ষ টাকা লুট

প্রকাশ : ২০ জুলাই ২০১৮, ১৮:২৯

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

লালমনিরহাটে এক শারীরিক প্রতিবন্ধীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাসীদের হামলা হয়েছে এবং দেড়লক্ষ টাকা লুট করার অভিযোগে লালমনিরহাট সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) বিকেলে জেলা শহরের বিডিআর হাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ইএসডিও এনজিও’র কর্মীরা তাদের ভাাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দ্বারা এ হামলা, মারপিট ও লুটপাটের ঘটনা ঘটায় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

অভিযোগে জানা যায়, লালমনিরহাট শহরের বিডিআরহাটস্থ মেসার্স মাসুম ফার্টিলাইজার সপ এর মালিক শারীরিক প্রতিবন্ধী মাসুম পারভেজ। তিনি ব্যবসায়িক সমস্যার কারণে গত বছরের ১৫ অক্টোবর মাসে ইকো সোসাল ডেভলেপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ইএসডিও), লালমনিরহাট শাখা থেকে ঋণ গ্রহন করেন। এর মধ্যে ওই বছরেই তার পিতা লালমনিরহাট পৌরসভার সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান ও কাউন্সিলর মোক্তার আলী মারা যান। তারপরেও শারীরিক প্রতিবন্ধী মাসুম পারভেজ চলকি বছরের ২৫ জুন পর্যন্ত ইএসডিও এনজিও’র ঋণের কিস্তি নিয়মিত প্রদান করেন। এর মাঝে কয়েকটা কিস্তি বকেয়া থাকার বিষয়ে গত ১৭ জুলাই তারিখে তার ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে বসে ইএসডিও কর্মীর সাথে বিস্তারিত আলোচনায় আগামী ১৯ জুলাই তারিখে বকেয়া সমুদয় কিস্তি প্রদানের সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু ওইদিন বিকালে টাকা দিতে দেরী করায় হঠাৎ করেই ইকো সোসাল ডেভলেপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ইএসডিও), লালমনিরহাটের রিজোনাল ম্যানেজারের নেতৃত্বে শাখা ব্যবস্থাপক নুর ইসলাম, মাঠকর্মী কামাল মিয়াসহ ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী ১৫/১৭জন মোটর সাইকেল করে এসে শারীরিক প্রতিবন্ধী মাসুমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অতর্কিত ভাবে হামলা চালায়। এ সময় তারা গালিগালাজ নানা ধরণের হুমকি প্রদর্শন করেন। হামলার সময় শারীরিক প্রতিবন্ধী মাসুম পারভেজ দোকানে না থাকলেও তার বড় ছেলে সোয়াদ পারভেজ, দোকানের ম্যানেজার নিপেন্দ্র নাথ, কর্মচারী রায়হান সন্ত্রাসীদের বাঁধা দিতে গিলে তাদের টানা হেঁচড়াসহ মারপিট করেন। এ সময় তারা মারাত্মক আহত হয়। হামলার এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা দোকানের ক্যাশ টেবিলের ড্রয়ারে থাকা দোকানের বিক্রিত ১ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। সন্ত্রাসীদেও হৈ হুল্লরে আস পাশের লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে  মেসার্স মাসুম ফার্টিলাইজার সপ এর মালিক শারীরিক প্রতিবন্ধী মাসুম পারভেজ বাদী হয়ে গত ১৮ জুলাই রাতেই লালমনিরহাট সদর থানায় ইকো সোসাল ডেভলেপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ইএসডিও) রিজোনাল ম্যানেজারের, শাখা ব্যবস্থাপক নুর ইসলাম, মাঠকর্মী কামাল মিয়াসহ অজ্ঞাত নামা আরও ১৫/১৭জনের বিরুদ্ধে লালমনিরহাট সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। 

শারীরিক প্রতিবন্ধী মাসুম পারভেজ বলেন, আমি সমস্যায় পড়ে ঋণ নিয়েছি। নিয়মিত কিস্তিও দিচ্ছি। আমার বাবার মারা যাওয়ায় ব্যবসার সমস্যার কারণে কিস্তি দেয়া সাময়িক বন্ধ ছিল। এ ব্যাপারে তাদের সাথে আলোচনা করে ১৯জুলাই বকেয়া কিস্তি প্রদানের সিদ্ধান্ত হলেও তার একদিন আগে হঠাৎ এনজিও কর্মীসহ তাদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অতর্কিত ভাবে হামলা করে দেড়লক্ষ টাকা লুট করে নিয়ে যান। এছাড়াও আমার বড় ছেলে ও কর্মচারীরা বাঁধা দিতে গিলে তাদেরকে মারপিট করেন।

এ ব্যাপারে এনজিও কর্মী ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে। আমি একজন শারিরিক প্রতিবন্ধি হয়ে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও লুট পাটের বিচার চাই। একদিন অতিবাহিত হলেও একজন শারীরিক প্রতিবন্ধীর ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের হামলা ও টাকা লুট করার ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানা পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি।

এ ব্যাপারে ইএসডিও শাখা ব্যবস্থাপক নুর ইসলাম ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, ঋণের কিস্তি চাওয়ায় আমাদের সাথে খারাপ আচরণ করেছেন তারা। তাই তাদের সাথে আমাদের একটু টানা হেঁচড়ার ঘটনা ঘটেছে। সেখান থেকে ১ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা লুট হওয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই।

এ ব্যাপারে লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহফুজ আলম ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, এনজিওর বিরুদ্ধের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পিডিএসও/রানা