ধর্ম পরিবর্তন করেও রেহাই পেল না খুনি

প্রকাশ : ২১ মার্চ ২০১৮, ১০:৫৩

চট্টগ্রাম ব্যুরো

খুনের দায় থেকে রেহাই পেতে ধর্ম পরিবর্তন করে আত্মগোপনে চলে যান এক ছিনতাইকারী। ঠিকানা না পেয়ে তাকে মামলার দায় থেকে মুক্তি দিতে আদালতে আবেদনও করে বসে গোয়েন্দা পুলিশ। এরপর আদালতের আদেশে ওই মামলাটি অধিকতর তদন্তের দায়িত্ব পেয়ে খুনিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

গ্রেফতার আল আমিন ওরফে প্রদীপ চৌধুরী১ (৩২) চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার আলীপুর এলাকার মৃত নিরঞ্জন চৌধুরীর ছেলে। ইসলাম ধর্ম গ্রহণের পর তিনি নিজের নাম রাখেন আল আমিন।

পিবিআই সূত্র জানায়, ২০১৪ সালের ৩ মার্চ বাকলিয়ার কালামিয়া বাজার এলাকায় আলাউদ্দিন (১৬) নামের এক তরুণ ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে ছুরিকাহত হন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আলাউদ্দিন মারা যান। এ ঘটনায় নিহতের মা বাদী হয়ে বাকলিয়া থানায় মামলা করেন। এ মামলার তদন্তভার পায় নগর গোয়েন্দা পুলিশ। পরবর্তীতে দুই আসামির নামে চার্জশিট দেওয়ার পাশাপাশি পলাতক আসামি আল আমিন ওরফে প্রদীপের সঠিক নাম-ঠিকানা না পাওয়ায় তাকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতির আবেদন জানান তদন্তকারী কর্মকর্তা।

এরপর গত ১৮ জানুয়ারি ওই চার্জশিট পর্যালোচনা করে অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মো. শাহাদাত হোসেন ভূঁইয়া আদেশ দেন, পলাতক আসামি আল আমিন ওরফে প্রদীপ ধর্মান্তরিত হওয়ার পর তার বর্তমান ঠিকানা পরিবর্তন হলেও পূর্বের ঠিকানা সঠিক থাকবে। এক্ষেত্রে বর্তমান ঠিকানা সংগ্রহ করা দুরূহ হওয়ার কথা নয় উল্লেখ করে পুলিশ পরিদর্শক পদমর্যাদার কর্মকর্তা দ্বারা মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য পিবিআই, চট্টগ্রাম মেট্রো ইউনিটকে নির্দেশনা প্রদান করেন।

আদালতের নির্দেশনার আলোকে পিবিআই পরিদর্শক জাহিদ হোসেন মামলাটির তদন্তভার গ্রহণ করে আসামির স্থায়ী ঠিকানা পরিদর্শন করেন। সেখানে তার বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে কেউ কোনো তথ্য দিতে না পারায় তার বর্তমান ঠিকানা তথা ধর্ম পরির্তনের পর তার বর্তমান স্ত্রী, শ^শুর-শাশুড়ি এবং শ্যালকদের সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করেন। পিবিআইয়ের তৎপরতার কথা জানতে পেরে তার শ^শুর বাড়ির লোকজন তাদের বর্তমান ভাড়া বাসা ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে যায়। তাদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন নম্বর বন্ধ করে দেয়।

পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রোর জনসংযোগ কর্মকর্তা পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা বলেন, তদন্তের একপর্যায়ে আল আমিন ওরফে প্রদীপ চৌধুরীকে গত ১৮ মার্চ রাতে ঢাকার মধ্য বাড্ডা ভূঁইয়া বাড়ি এলাকায় মুদির দোকানদারি করা অবস্থায় গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত থাকা, মামলা থেকে রেহাই পেতে ধর্ম পরিবর্তন এবং ঢাকা শহরে পালিয়ে থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রোর পরিদর্শক জাহিদ হোসেন বলেন, আল আমিন ওরফে প্রদীপ চৌধুরীকে গতকাল মঙ্গলবার আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে আদালত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

পিডিএসও/তাজ