বসিক নির্বাচন

বিএনপি মিথ্যাচার করছে : সংবাদ সম্মেলনে নেতাকর্মীরা

প্রকাশ | ২৭ জুলাই ২০১৮, ১৮:৩৭

আল আমিন জুয়েল, বরিশাল

সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপি চরম মিথ্যাচার করছে বলে অভিযোগ করেছে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’র জনপ্রিয়তায় বিএনপি ভীত হয়ে এনালগ যুগের মানুষ মজিবর রহমান সরোয়ার বিভ্রান্তিমুলক বক্তব্য দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগ।  

শুক্রবার বিকেল ৪টায় আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন দলের নেতাকর্মীরা। 

বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল বলেন, বরিশালে নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ থাকলেও  নির্বাচনের পরাজয় অগ্রীম জানতে পেরে বিএনপি মিথ্যাচার করছে। অভিযোগ করা বিএনপি’র অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। আর তাই গতানুগতিকভাবে তারা অনিয়মের কথা তুলে ধরে আর এক জনের ঘাড়ে দোষ চাপাতে চাইছে। 

সংবাদ সম্মেলনের লিখিত বক্তেব্যে এ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল আরো বলেন, ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী’র বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ৯টি অভিযোগ নির্বাচন কমিশন বরাবর তুলে ধরা হয়েছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় একটি অভিযোগেরও কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিএনপি’র কর্মীরা নৌকা প্রার্থী’র পোষ্টার ছিঁড়েছে, শোডাউন করেছে, উঠান বৈঠকের নামে প্রকাশ্যে জনসভা করেছে, সরকারি অফিসের সামনে নির্বাচনী অফিস নির্মাণ করেছে। 

বরিশালের বিভিন্ন অঞ্চলের চিহিৃত খুনি ও সন্ত্রাসীদের সাখে নিয়ে কয়েক’শ মোরটসাইকেল নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় মহড়া দিয়েছে। এমনকি বিএনপি প্রার্থী’র স্ত্রী হাতেম আলী কলেজে ঢুকে বক্তব্য দিয়েছে এবং ৩০ জুলাই এর পর দেখিয়ে দেবেন বলে প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়েছেন। 

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, এ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার একাধিকবার বরিশাল সিটি কপোরেশনের মেয়র ও নির্বাচিত সংসদ সদস্য থাকা সত্বেও দৃশ্যমান কোনও কাজ দেখাতে পারেননি। তবে জনগন তাকে কেন ভোট দেবে? 

সোমবার বরিশাল সিটি কপোরেশন নির্বাচনে বরিশালের মানুষ স্বতস্ফুর্তভাবে ভোট দিয়ে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহকে বিপুল ভোটে জয়ী করবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। 

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ বলেন, বিএনপি বলেছে আমরা নাকি বহিরাগত এনে বাসা বাড়িতে রেখেছি। কিন্তু নির্বাচনের সময় বরিশালের বিভিন্ন এলাকা থেকে নেতাকর্মীরা আসবে এটাই স্বভাবিক কিন্তু ২৭ তারিখ রাতের পর কেউ থাকে কিনা সেটাই দেখার বিষয়। 

বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতার হয়রানির বিষয়ে বলেন, বিএনপি’র একাধিক নেতাকমীর নামে পূর্বের একাধিক মামলা রয়েছে। অনেকে বেশ কিছু মামলার পালাতক আসামি। পুলিশ চলমান আইনী প্রক্রিয়ায় তাদেরকে গ্রেফতার করছে। পরে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে ভোটারদের কাছে নৌকায় ভোট দেওয়ার আহবান জানান।  

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট এ.কে.এম জাহাঙ্গীর, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাড বলরাম পোদ্দার প্রমুখ। 

পিডিএসও/রিহাব