শিল্পকলায় যাত্রাপালা ‘বিদ্রোহী বুড়িগঙ্গা’

প্রকাশ : ০৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:৩৯

শিল্প-সাহিত্য প্রতিবেদক

আমাদের মানুষের জীবনের অনেক গল্প, কাহিনি, উপাখ্যান আর অনেক ঘটনার ডামাডোলে চাপা পড়ে যায়। ইতিহাসের প্রায়- হারিয়ে যাওয়া সেই ঐতিহ্যের একটি অংশ নিয়ে কবি প্রাবন্ধিক গবেষক ড. আমিনুর রহমান সুলতান লিখেছেন মৌলিক যাত্রাপালা ‘বিদ্রোহী বুড়িগঙ্গা।’

কাল বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির পরীক্ষণ থিয়েটার হলে প্রদর্শিত হবে দেশ অপেরার দর্শকনন্দিত এই যাত্রাপালা। ইতিহাস নিংড়ানো এই পালাটি নির্দেশনা দিয়েছেন বিশিষ্ট যাত্রানট মিলন কান্তি দে।

রক্তরাঙা পলাশীর বিয়োগান্তক পরিণতির পর ইংরেজের বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছিল সন্ন্যাসী, ফকির ও তাঁতী সম্প্রদায়। বিশেষ করে মসলিন তৈরির তাঁতী। তাদের পুঞ্জিভূত ক্ষোভ বেদনার বিস্তৃতি ঘটে বিদ্রোহে ও বিক্ষোভে। এ বিষয়গুলো কয়েকটি চরিত্রের মধ্য দিয়ে প্রকাশ করা হয়েছে বিদ্রোহী বুড়িগঙ্গা যাত্রাপালায়।

২০১৬ সালে ২ আগস্ট উদ্বোধনী প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে মঞ্চে আসে এই যাত্রাপালা। কিছু রদবদল ও পরিমার্জনের মধ্য দিয়ে পালাটিকে এবার নতুনভাবে সাজানো হয়েছে।

এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন- আলীনূর, এম আলম লাবলু, সুদর্শন চক্রবর্তী, আবদুর রশীদ, সাদ্দাম, টিপু, আন্নানূর রাশেদ, আলমাস, বেগম তপতী, গোধূলী, মণিমালা ও গায়ক শংকর এবং মিলন কান্তি দে। পালার সার্বিক ব্যবস্থাপনায় রয়েছেন আলমাস।

এই পালার স্মারক- আলতাফ হোসেন, রূপসজ্জায়- জাহাঙ্গীর হোসেন, পোশাক সর্বরাহে- নয়ন শেখ এবং সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন গোকুল ঘোষ। পালাটির সার্বিক তত্ত্বাবধানে রয়েছেন শিলু রহমান।

পিডিএসও/তাজ