আড্ডার কবি মৃধা আলাউদ্দিন

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৯, ১৬:৫৮

অনলাইন ডেস্ক

সম্প্রতি কবি রুকসানা রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হলো ম্যাজিক লণ্ঠনের ৭০৫তম সাহিত্য আড্ডা। আড্ডার মূল কবি, মধ্যমণি ছিলেন মৃধা আলাউদ্দিন। মৃধা নব্বই দশকের অন্যতম নিভৃত কবিদের একজন। লিখছেন গল্প, কবিতা, ছড়া ও সমালোচনা সাহিত্য। দেশের জাতীয় দৈনিক ও লিটলম্যাগে তার লেখা নিয়মিত ছাপা হচ্ছে।

বক্তারা মৃধার কবিতা নিয়ে উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে বলেন, মৃধা একজন ছন্দ সচেতন নাগরিক কবি। তার কবিতায় উঠে এসেছে সমাজের কুসংস্কার, নীতিহীন-বিপ্রতীব সময়ের ছবি, নোংরা রাজনীতি এবং একই সঙ্গে নিপুণ কারিগরের মতো মৃধা তার কবিতায় প্রেম দ্রোহ ও ভালোবাসার গান গেয়েছেন। সমাজ বিনির্মাণের গাথা কবিকে আলাদা বৈশিষ্ট্য দান করেছে। কবির দোঁহাগুচ্ছ কাপলেটে পরিণত হয়েছে বলেই আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস। নিঃসন্দেহে বলা যায় সমালোচনা সাহিত্যে কবি তার নিজস্ব জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন।

মৃধা আলাউদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, প্রশংসা, ভালোবাসা একজন কবির সামনের পথ আরো সুন্দর-সুগম করে দেয়। কবি বুক টান টান করে হেঁটে যায় দূর দিগন্ত ও সামনের সমুদ্রে। ...আমি আজ তৃপ্ত। সত্যি আজ আমি অতিশয় পরিতৃপ্ত।

অনুষ্ঠানটির সঞ্চলনায় ছিলেন ম্যাজিক লণ্ঠনের প্রধান সম্পাদক কবি রতন মাহমুদ ও সম্পাদক কুমার বিপ্লব। উপস্থিত কবিদের মধ্যে ছিলেন—কবি কাজী রোজী, আবু সাইদ জুবেরী, রেজাউদ্দিন স্টালিন, বকুল আশরাফ, হরষিদ বালা, ফরিদুজ্জামান, জামসেদ ওয়াজেদ, ফরিদ ভুঁইয়া, ইউসুফ রেজা, শফিক ইমতিয়াজ, সাদিক মোহাম্মদ, মেরিনা সঈদ, জ্যাক ডেনভার, কামরুল হাসান মৃধাসহ অনেকে।  

কবি মৃধা আলাউদ্দিনের প্রথম কাব্যগ্রন্থ রৌদ্দুরে যায় মন (প্রকাশকাল ২০০৫)। প্রকাশিতব্য গ্রন্থ : সামনের শীতে মানুষ রৌদ্র হবে (কাব্যগ্রন্থ), প্রজাপতি হয়ে গ্যাছে কোনো কোনো মাছ (কাব্যগ্রন্থ), জঙধরা পিনালবোড (গল্পগ্রন্থ), চড়ুইয়ের চিড়িপ চিড়িপ শব্দ (কিশোর কবিতা), শুঁড়িখানার নরম দেহ (দোঁহা কাব্যগ্রন্থ), অল্পকিছু বিষ প্রয়োজন (দোঁহা কাব্যগ্রন্থ), আল মাহমুদ ও অন্যান্য সন্দর্ভ প্রভৃতি।

পিডিএসও/হেলাল